Bangladesh Icon
আইকন সংবাদ:

সায়েম সোবহান আনভীর

ব্যবস্থাপনা পরিচালক বসুন্ধরা গ্রুপ


দেশকে যাঁরা শিল্পায়িত বাংলাদেশে রূপান্তরের লক্ষ্যে মেধা ও মননকে সর্বোত্তমভাবে কাজে লাগিয়ে এগিয়ে চলছেন জনাব সায়েম সোবহান আনভীর তাদের মধ্যে অন্যতম। কর্মই তাঁর প্রেরণার উৎস। তিনি একজন উদ্যমী দূরদৃষ্টিসম্পন্ন অভিজ্ঞ ব্যবসায়ী। তিনি দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখার মধ্য দিয়ে দেশকে গতিশীল ও আধুনিকায়নে অনন্য ভূমিকা পালন করছেন।

সততা, প্রতিশ্রুতি, সংকল্প এবং কর্মপরিকল্পনার মধ্য দিয়ে উত্তরোত্তর সাফল্যের স্বর্ণশিখরে উঠে আসতে সফল হয়েছে দেশের বিকাশমান শিল্প ও বাণিজ্য অঙ্গনে অন্যতম নাম বসুন্ধরা গ্রুপ। অত্যন্ত দক্ষ ব্যবস্থাপনায় সাফল্যের সিঁড়িগুলো দ্রুত বেয়ে আজ এই উচ্চতায় বসুন্ধরা গ্রুপ। দেশে বেসরকারী খাতে গড়ে ওঠা বিশাল শিল্প সাম্রাজ্য ‘বসুন্ধরা গ্রুপ’।

 প্রযুক্তিগত মান উন্নয়নের লক্ষ্যে উন্নত প্রশিক্ষণ ব্যবস্থা, দক্ষ ও সৃজনশীল কর্মশক্তি সৃষ্টি করে বসুন্ধরা এগিয়ে চলেছে। এই গ্রুপের বিস্তৃতি ও ব্যবসায়িক সাফল্যের কারণে জাতীয় অর্থনীতিতে এর প্রভাব পড়ছে। সায়েম সোবহান আনভীর এই বিশাল শিল্প সাম্রাজ্যের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং অন্যতম প্রাণপুরুষ।

তাঁর এই অব্যাহত চেষ্টা দেশের শিল্পায়নে অভূতপূর্ব উন্নতির পাশাপাশি কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে বেকারত্বের হার হ্রাস করতে সক্ষম হয়েছে। শ্রমজীবী মানুষ কর্মের সুযোগ পেয়ে ব্যস্ত ও সচ্ছল জীবন যাপন করছে। শ্রম ও নিয়মানুবর্তিতার মাধ্যমে ব্যবসাকে কীভাবে গতিশীল করা যায়, মানুষকে সংঘবদ্ধ করা যায় এবং কাক্সিক্ষত লক্ষ্যে পৌঁছানো যায় জনাব আনভীর সেটা প্রমাণ করেছেন।

তিনি মনে করেন, একমাত্র শিল্পায়নের মাধ্যমে রাষ্ট্রকে উন্নয়নের সিঁড়ির দিকে নিয়ে যাওয়া সম্ভব। কারণ বাংলাদেশে জনসংখ্যার যে আধিক্য এর জন্য প্রয়োজনে শ্রমঘন শিল্প কারখানা। তাতে এক দিকে যেমন বেকারত্ব ঘুচবে; তেমনি জাতীয় অর্থনীতি হবে আরও সমৃদ্ধ। প্রতিভাবান, উদ্যমী ও নন্দিত উদ্যোক্তা সায়েম সোবহান আনভীর শিল্প ও ব্যবসা-বাণিজ্যের যে ক্ষেত্রেই উদ্যোগ নিয়েছেন সেখানেই সফল হয়েছেন। তিনি বিশ্বাস করেন- সততা, প্রচেষ্টা এবং লক্ষ্য যদি সঠিক হয় তবে যে কোন কাজে সাফল্য আসবেই। উদ্যোক্তা হল যারা কোনো কাজে সমাজের চাহিদা অনুযায়ী পরিমিত ঝুঁকি এবং মানবসম্পদকে কাজে লাগিয়ে লক্ষ্য স্থির করে সফল হওয়ার পরিকল্পনা নিয়ে এগিয়ে যায়।

উদ্যোক্তা কয়েক প্রকারের হতে পারেন। ক) কারিগরি উদ্যোক্তা খ) পরিপক্ক সুযোগসন্ধানী উদ্যোক্তা এবং গ) উদ্ভাবনী উদ্যোক্তা। কারিগরি উদ্যোক্তাগণ পরিকল্পনার প্রকাশ ঘটান। দেশকে উন্নত পর্যায়ে নিয়ে যেতে উদ্ভাবনী উদ্যোক্তাগণ হলেন দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের অগ্রপথিক। তাদের মেধা ও সুদূরপ্রসারী সময়োপযোগী পরিকল্পনা দেশের শিল্পায়নের ক্ষেত্রে অত্যন্ত কার্যকর। উদ্যোগক্তা হিসাবে বসুন্ধরা গ্রুপের মধ্যে উল্লিখিত গুণাবলীর সমন্বয় বিদ্যমান বিধায় আজ বসুন্ধরা গ্রুপ ৫৩ টি শিল্প ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান অত্যন্ত সুনামের সাথে পরিচালনা করেছে।

আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন শিল্পোদ্যোক্তা জনাব আহমেদ আকবর সোবহানের পুত্র সায়েম সোবহান আনভীর বিজনেস ম্যানেজমেন্টের উপর যুক্তরাজ্য থেকে ডিগ্রি লাভের পর দেশে ফিরে বসুন্ধরা গ্রুপে যোগদান করেন। যোগদানের পর তিনি বসুন্ধরার শিল্প ও ব্যবসা-বাণিজ্যের উপর এক ইতিবাচক প্রভাব ফেলতে শুরু করেন। এ সুবাদে বসুন্ধরা গ্রুপ শিল্পজগতে এক অনন্য উচ্চতায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।

বর্তমানে বসুন্ধরা গ্রুপে আনুমানিক ৫০ হাজার শ্রমজীবী মানুষ কর্মরত থেকে পরিচ্ছন্ন ও স্বাভাবিক জীবনযাপন করছেন। তাঁর সফল নেতৃত্বের সুবাদে দেশের অর্থনীতিতে বসুন্ধরা গ্রুপ গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান হিসাবে আবির্ভূত হয়েছে। শিল্প সাম্রাজ্যে তরুণ রাজকুমার সায়েম সোবহান আনভীর যার মেধা ও আন্তরিক স্পর্শে এ দেশের শিল্পাঙ্গনে ও শিল্প-বাণিজ্যে অভূতপূর্ব পরিবর্তন এসেছে। সায়েম সোবহান শুধু স্বপ্ন দেখেই ক্ষান্ত নন, স্বপ্ন বাস্তবায়নেও পালন করেন বিশেষ ভূমিকা। এ ভাবেই বসুন্ধরা গ্রুপ এখন বেসরকারি খাতে শীর্ষস্থানীয় শিল্প গ্রুপ রূপে দেশের মানুষের আশা-আকাক্সক্ষার প্রতীকে পরিণত হয়েছে। সায়েম সোবহান পরিণত হয়েছেন স্বনামখ্যাত শিল্পোদ্যোক্তা-ব্যবসায়ী ব্যক্তিত্ব হিসেবে। যদিও তরুণ ও চঞ্চলতা বিদ্যমান; কিন্তু প্রচুর কর্মক্ষমতা, ধী-শক্তি, প্রখর দূরদৃষ্টিসম্পন্ন চিন্তাভাবনা ও ভবিষ্যৎকে আলিঙ্গন করার ক্ষমতা, তাঁকে আর পেছনে তাকাতে দেয়নি।

ব্যবসার প্রয়োজনে সায়েম সোবহান দেশে-বিদেশে বহু সেমিনার, মিটিংয়ে অংশগ্রহণ করেছেন। আন্তর্জাতিক ব্যবসায়ে যথেষ্ট জ্ঞানের অধিকারী সায়েম সোবহান বিশ্বেও বিভিন্ন দেশে শিল্প ও বাণিজ্য সম্প্রসারণে অত্যন্ত সুচারুরূপে বিশেষ ভূমিকা রেখেছেন। ব্যবসা-বাণিজ্যের মাঝেও নিজ দেশের মানুষের প্রতি ভালোবাসার কমতি নেই। তিনি সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে সমাজের উন্নয়নের জন্য, স্বাস্থ্য ও শিক্ষার জন্য এবং সমাজ হতে দারিদ্র বিমোচনের জন্য অত্যন্ত আন্তরিক ও কর্মতৎপর; এই উদ্দেশ্যে মানিকগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় বসুন্ধরা ফাউন্ডেশনের বোর্ড অব ট্রাস্ট এর মাধ্যমে ফ্রি ফ্রাইডে ক্লিনিক পরিচালনা করেন। ওষুধ, স্বাস্থ্য সেবা পেয়ে অত্র এলাকার জনগণ ধন্য। দরিদ্র অবস্থায় এই ধরনের উন্নতমানের চিকিৎসা পেয়ে স্থানীয় জনগণের স্বাস্থ্যকষ্ট লাঘব পেয়েছে। ওই ফাউন্ডেশন সায়েম সোবহানের নিজস্ব তত্ত্বাবধানে মানিকগঞ্জে ২০০ বেডের একটি হসপিটাল তৈরি করছে। তাঁর নেতৃত্বে ট্রাস্টি ফাউন্ডেশন দরিদ্র লোকদের মাঝে ঋণ বিতরণ করে তাদের দারিদ্র মোচনে কার্যকরী ভূমিকা রেখে চলেছে। মানব-হিতৈষি কাজে জনাব সায়েম সোবহানের পদক্ষেপ সবসময় তাঁর আন্তরিক ও খোলামনেরই পরিচয় বহন করে। মানবকল্যাণে কাজ করাকে নিজের মনের প্রশান্তি মনে করেন।

জনাব সায়েম সোবহান আনভীর এমনই একজন প্রাজ্ঞ ব্যক্তি যিনি বসুন্ধরা গ্রুপের প্রত্যেকটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বিচরণ করেন। মানবসম্পদকে কীভাবে কাজে লাগিয়ে উৎপাদনের প্রবাহকে ঠিক রাখা ও পরিকল্পনার মাধ্যমে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায় এ বিষয়ে তিনি নিজের মেধার বিকাশ ঘটিয়ে প্রমাণ রেখেছেন। জনাব সায়েম সোবহান আনভীর সৃজনশীলতায় বিশ্বাসী কৃতি ও সফল ব্যক্তিত্ব। আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন-অগ্রগতিতে স্বীয় মেধা ও দূরদর্শী চিন্তা চেতনার মধ্য দিয়ে নিজেকে একজন অগ্রসর ব্যক্তিত্বের মর্যাদায় অধিষ্ঠিত করেছেন।

বসুন্ধরা গ্রুপ দেশের অর্থনীতিতে গত ২০ বৎসরকাল যাবৎ ইতিবাচক ভূমিকা পালন করে চলেছে। দেশের শিক্ষিত সমাজের সম্মানজনক কর্মসংস্থান বসুন্ধরা গ্রুপের একটি অঘোষিত চ্যালেঞ্জ। দেশে ও আন্তর্জাতিকভাবে বসুন্ধরার উৎপাদিত পণ্য ব্যবহার করা হয়। বিশ্বমান ও গুণগতমান ঠিক রেখে বসুন্ধরা পণ্য উৎপাদনে নিয়োজিত। কারণ বসুন্ধরার নিজস্ব ল্যাব, কারিগরি দক্ষতা বাড়ানো বা অন্য যেকোনো বিষয়ে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা নিজস্ব রিসার্চ সেন্টার ও মানবসম্পদকে কাজে লাগানোর জন্য এইচ আর বিভাগ রয়েছে, যা খুব পরিশীলিতভাবে, অত্যন্ত দায়িত্বের সাথে পরিচালিত হচ্ছে। বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবসা-বাণিজ্য অনেক খাতে বিস্তৃত; এর মধ্যে আবাসন ছাড়াও অন্যান্য শিল্প প্রতিষ্ঠান এবং দেশের ভেতর ও আন্তর্জাতিক ট্রেডিং ব্যবসায় বসুন্ধরা গ্রুপের কারিগরি জ্ঞান ও মেধাসম্পন্ন ম্যানেজারিয়াল ফোর্স উন্নয়নের যে কোনো চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সব সময় প্রস্তুত।

ব্যবসা ও দেশের অর্থনীতির ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য সরকার সায়েম সোবহান আনভীরকে  সিআইপি (কমার্শিয়ালি ইম্পরটেন্ট পার্সন) হিসাবে পুরস্কৃত করেছে। চেতনাগত বিশ্বাসে এগিয়ে যাওয়ার অদম্য ইচ্ছা ও জীবনকে এক গতিময় ছন্দে উপনীত করার মানসিক শক্তি তাঁকে আজ অনন্য উচ্চতায় এনে দিয়েছে। জনাব সায়েম সোবহান আনভীর সময়ের আলোকিত এবং আলোচিত শিল্প ও ব্যবসা-বাণিজ্য অঙ্গনের তারকা ব্যক্তিত্ব।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান BANGLADESH ICON আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ আতিউর রহমান বেগম রোকেয়া মোস্তাফা জব্বার ভাষা শহিদ সজীব ওয়াজেদ জয় তাজউদ্দীন আহমদ শেরে বাংলা ফজলুল হক মাওলানা ভাসানী  প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার বেগম সুফিয়া কামাল শেখ হাসিনা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হোসেন শহিদ সোহরাওয়ার্দি কাজী নজরুল ইসলাম মাস্টারদা সূৰ্য সেন ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ মণি সিংহ স্যার ফজলে হাসান আবেদ  সালমান এফ রহমান সুফী মুহাম্মদ মিজানুর রহমান মোরশেদ আলম এমপি সৈয়দ মঞ্জুর এলাহী আহমেদ আকবর সোবহান জয়নুল হক সিকদার দীন মোহাম্মদ আজম জে. চৌধুরী প্রফেসর মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন সাইফুল আলম মাসুদ আলহাজ্ব এম এম এনামুল হক খলিলুর রহমান এ কে এম রহমত উল্লাহ্ ইফতেখার আহমেদ টিপু শেখ কবির হোসেন এ কে আজাদ ডাঃ মোমেনুল হক আলহাজ্ব মোঃ হারুন-উর-রশীদ কাজী সিরাজুল ইসলাম নাছির ইউ. মাহমুদ ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল আজিজ শেখ ফজলে ফাহিম প্রফেসর ড. কবির হোসেন তালুকদার মোঃ হাবিব উল্লাহ ডন রূপালী চৌধুরী হেলেন আখতার নাসরীন মনোয়ারা হাকিম আলী নাসরিন সরওয়ার মেঘলা প্রীতি চক্রবর্তী মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির ক্যাপ্টেন তাসবীরুল আহমেদ চৌধুরী এহসানুল হাবিব আলহাজ্জ্ব জাহাঙ্গীর আলম সরকার আলহাজ্ব খন্দকার রুহুল আমিন তানভীর আহমেদ ড. বেলাল উদ্দিন আহমদ মোঃ শফিকুর রহমান সেলিম রহমান মাফিজ আহমেদ ভূঁইয়া  মোঃ ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদ  শহিদ রেজা আব্দুর রউফ জেপি এডভোকেট ইকবাল আহমদ চৌধুরী এ কে এম সরওয়ারদি চৌধুরী ড. এম. মোশাররফ হোসেন মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন লায়ন মোঃ মোজাম্মেল হক ভূঁইয়া মোঃ মিজানুর রহমান সায়েম সোবহান আনভীর মামুন-উর-রশিদ বি এম ইউসুফ আলী মোঃ জামিরুল ইসলাম ডক্টর হেমায়েত হোসেন মোঃ শাহ আলম সরকার ফারজানা চৌধুরী এম. সামসুজ্জামান মেজর পারভেজ হাসান (অব.) এম এ মতিন সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল মাসুদ পারভেজ খান ইমরান ড. এম এ ইউসুফ খান কাজী সাজেদুর রহমান ড. হাকীম মোঃ ইউছুফ হারুন ভূঁইয়া আলহাজ্ব মীর শাহাবুদ্দীন মোঃ মুনতাকিম আশরাফ (টিটু) মোঃ আবদুর রউফ কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদ আব্দুল মাতলুব আহমাদ মোঃ মজিবর রহমান মোহাম্মদ নূর আলী সাখাওয়াত আবু খায়ের মোহাম্মদ আফতাব-উল ইসলাম মোঃ সিরাজুল ইসলাম মোল্লা এমপি প্রফেসর ড. আবু ইউসুফ মোঃ আব্দুল্লাহ মোঃ জসিম উদ্দিন বেনজীর আহমেদ মিসেস তাহেরা আক্তার পারভীন হক সিকদার নাসির এ চৌধুরী হাফিজুর রহমান খান ড. মোহাম্মদ ফারুক কাইউম রেজা চৌধুরী মোঃ সবুর খান মাহবুবুল আলম মোঃ হেলাল মিয়া সেলিমা আহমাদ নজরুল ইসলাম ড. এ এস এম বদরুদ্দোজা ড. হায়দার আলী মিয়া ইঞ্জিনিয়ার গুলজার রহমান এম জামালউদ্দিন মোঃ আব্দুল হামিদ মিয়া মোঃ হাবিবুর রহমান মোঃ মুহিব্বুর রহমান চৌধুরী মোহাম্মদ নুরুল আমিন জিয়াউর রহমান ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী শ্যামল দত্ত জ ই মামুন আনিসুল হক সামিয়া রহমান মুন্নি সাহা আব্বাসউদ্দীন আহমদ নীলুফার ইয়াসমীন ফিরোজা বেগম শাহ আব্দুল করিম ফরিদা পারভীন সরদার ফজলুল করিম আনিসুজ্জামান আখতারুজ্জামান ইলিয়াস হুমায়ূন আহমেদ সেলিম আল দীন জহির রায়হান বুলবুল আহমেদ রওশন জামিল সৈয়দ হাসান ইমাম হেলেনা জাহাঙ্গীর অঞ্জন রায় অধ্যক্ষ আব্দুল আহাদ চৌধুরী অধ্যাপক আবু আহমেদ অধ্যাপক  আবু সাইয়িদ অধ্যাপক আমেনা মহসীন অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ অধ্যাপক জয়নাল আবদিন এমপি অধ্যাপক ড. আরিফুর রহমান অধ্যাপক ড. আব্দুল মতিন পাটোয়ারী অধ্যাপক ড. ইজাজ হোসেন অধ্যাপক ড. এ কে আজাদ চৌধুরী অধ্যাপক ড. এ কে আব্দুল মোমেন অধ্যাপক ড. এম এ মান্নান অধ্যাপক ড. এম এ হাকিম অধ্যাপক ড. এম শমসের আলী অধ্যাপক ড. দিলারা চৌধুরী অধ্যাপক ড. শাহেদা ওবায়েদ অধ্যাপক ড. সদরুল আমিন অধ্যাপক ড. হাফিজ জি. এ. সিদ্দিকী অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন অধ্যাপক তৌহিদুল আলম অধ্যাপক ডা. বরেন চক্রবর্তী অধ্যাপক ডা. মতিউর রহমান অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ অধ্যাপক ডা. মোঃ হাবিবে মিল্লাত এমপি অধ্যাপক মেহতাব খানম অধ্যাপিকা অপু উকিল এমপি অধ্যাপক ড. হোসনে আরা বেগম আইয়ুব বাচ্চু আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন আনিস এ. খান আনোয়ার উল আলম চৌধুরী পারভেজ আনোয়ার হোসেন মঞ্জু আবদুল বাসেত মজুমদার আবু সাঈদ খান আবুল কাশেম মোঃ শিরিন আবুল কাসেম হায়দার আবুল মাল আব্দুল মুহিত আব্দুল আউয়াল মিন্টু আব্দুল মতিন খসরু এমপি আবদুল মুকতাদির আব্দুল মুয়ীদ চৌধুরী আব্দুস সালাম মুর্শেদী আমির আমির হোসেন আমু এমপি আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী আয়শা খানম আ স ম আবদুর রব আ স ম ফিরোজ আসাদুজ্জামান খান কামাল আসিফ ইব্রাহীম আলী রেজা ইফতেখার আ হ ম মুস্তফা কামাল এমপি ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুন ইনায়েতুর রহিম ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক এমপি ইঞ্জিনিয়ার নুরুল আকতার ইমদাদুল হক মিলন উপধ্যক্ষ মোঃ আব্দুস শহীদ এমপি এ এইচ এম নোমান এ এইছ আসলাম সানি এ কে ফাইয়াজুল হক রাজু এডভোকেট তানবীর সিদ্দিকী এডভোকেট ফজিলাতুন নেসা বাপ্পি এমপি এডভোকেট মোঃ ফজলে রাব্বী এমপি এনাম আলী এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি এম এ সবুর এম নাছের রহমান এয়ার কমডোর ইসফাক এলাহী চৌধুরী (অব.) এস এম ফজলুল হক ওয়াহিদা বানু কবরী সারোয়ার কাজী ফিরোজ রশীদ কেকা ফেরদৌসী কে. মাহমুদ সাত্তার খন্দকার রুহুল আমিন খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ খালেদ মুহিউদ্দীন খুশি কবির জুনাইদ আহমেদ পলক জোবেরা লিনু টিপু মুন্সী ড. আবুল বারকাত ড. কাজী কামাল আহমদ ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ ড. তৌফিক এম. সেরাজ ড. বদিউল আলম মজুমদার ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন ড. সাজ্জাদ জহির ড. সা’দত হুসাইন মেজর জেনারেল সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহীম (অব.) বীর প্রতীক মেজর জেনারেল হেলাল মোর্শেদ খান (অব.) বীর বিক্রম মেহের আফরোজ চুমকি মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ মিথিলা ফারজানা মীর নাসির হোসেন মীর মাসরুর জামান মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দীন মীর শওকাত আলী বাদশা মুনিরা খান মুহাম্মদ আজিজ খান মোহাম্মদ নূর আলী মোঃ গোলাম মাওলা রনি এমপি মোঃ জসিম উদ্দিন মসিউর রহমান রাঙ্গা রাশেদ খান মেনন রাশেদা কে চৌধুরী লে. কর্ণেল মোঃ ফারুক খান (অব.) শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানি শাইখ সিরাজ শাওন মাহমুদ শাজাহান খান এমপি শামসুজ্জামান খান শাহীন আনাম শারমীন মুরশিদ শুভ্র দেব শিবলী মোহাম্মদ শিরীন আখতার সরদার সাখাওয়াত হোসেন বকুল স্থপতি মোবাশ্বের হোসেন সাঈদ খোকন সাকিব আল হাসান সাগুফতা ইয়াসমিন এমেলী সাব্বির হাসান নাসির সালমা খান সালাউদ্দিন কাশেম খান সিগমা হুদা সিলভীয়া পারভীন লিনি সুকুমার রঞ্জন ঘোষ সুরাইয়া জান্নাত সুলতানা কামাল সৈয়দ আখতার মাহমুদ সৈয়দ আবুল মকসুদ সৈয়দ মার্গুব মোর্শেদ সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান হাসানুল হক ইনু ড. সিনহা এম এ সাঈদ অধ্যাপক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন ড. হামিদুল হক ড. হোসেন জিল্লুর রহমান ড. হোসেন মনসুর ড. রেজোয়ান সিদ্দিকী ডা. অরূপরতন চৌধুরী ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী ডা. জাফরুল্লাহ্ চৌধুরী ডা. জোনাইদ শফিক ডা. মোঃ আব্দুল মতিন ডা. লুৎফর রহমান ডা. সরদার এ নাঈম ডা. সাঈদ আহমেদ সিদ্দিকী ডা. সামন্ত লাল সেন তোফায়েল আহমেদ তালেয়া রেহমান দিলরুবা হায়দার নজরুল ইসলাম খান নজরুল ইসলাম বাবু নবনীতা চৌধুরী নাঈমুর ইসলাম খান নমিতা ঘোষ নাঈমুর রহমান দূর্জয় নাসরীন আওয়াল মিন্টু নুরুল ইসলাম সুজন এমপি নুরুল কবীর নিলোফার চৌধুরী মনি এমপি প্রকোশলী তানভিরুল হক প্রবাল প্রফেসর মেরিনা জাহান ফকির আলমগীর ফরিদ আহমেদ বেগম মতিয়া চৌধুরী বিগ্রেডিয়ার জেনারেল এম সাখাওয়াত হোসেন (অব.) ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ ব্যারিস্টার আমীর-উল ইসলাম ব্যারিস্টার তানিয়া আমীর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা ব্যারিস্টার সারা হোসেন ভেলরি এ টেইলর মতিউর রহমান চৌধুরী মনজিল মোরসেদ মমতাজ বেগম এমপি মামুন রশীদ মাহফুজ আনাম মাহফুজ উল্লাহ