Bangladesh Icon
আইকন সংবাদ:

এ কে আজাদ

চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর হা-মীম গ্রুপ


জনাব এ কে আজাদ পরিশ্রম আর সততায় উঠে এসেছেন শূন্য থেকে শিখরে। অব্যাহত শিল্পায়নের পথ ধরে এগিয়ে চলছে বাংলাদেশ, ধীরে ধীরে স্থান করে নিচ্ছে বিশ্বের শিল্পোন্নত দেশের কাতারে। এই শিল্পায়ন প্রক্রিয়ায় যে সকল বেসরকারি উদ্যোক্তা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন তাঁদেরই একজন জনাব এ কে আজাদ। তারুণ্যে উজ্জীবিত এই শিল্পপতি দেশখ্যাত হা-মীম গ্রুপ অব কোম্পানিজের চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর।

হা-মীম গ্রুপ দেশের বস্ত্র খাতের প্রাচীন ঐতিহ্যের সুবিশাল ভাণ্ডারকে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিচ্ছে। এক সময় বস্ত্র শিল্প বিশেষ করে এ দেশের মসলিন কাপড় ছিল বিশ্বব্যাপি সমাদৃত। পরবর্তীতে ব্রিটিশ শাসক ও বেনিয়াগোষ্টির কোপানলে দেশের এই বস্ত্র শিল্প ধ্বংসপ্রায় হয়ে পড়ে। দেশের বস্ত্রশিল্পের দুর্দিনে যে ক’জন উদ্যোক্তা এই শিল্পকে মেধা ও শ্রম দিয়ে উন্নত পর্যায়ে নিয়ে গিয়ে বাঁচিয়ে রাখার আপ্রাণ চেষ্টা করে চলেছেনÑতাঁদের মধ্যে এ কে আজাদ একজন। লুপ্তপ্রায় বস্ত্র শিল্পকে দেশের সর্বোচ্চ বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনকারী খাত হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে তিনি সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। সম্প্রতি এই শিল্পে সংকটময় মুহূর্তে সামনে থেকে সমস্যা সমাধানে দায়িত্ব পালন করছেন। যে মুহূর্তে ‘কোটামুক্ত’ প্রসঙ্গ টেনে এই খাতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছিল সে মুহূর্তে তিনি অসীম মনেবলে সহযোদ্ধাদের নিয়ে সামনে এগিয়ে গেছেন। দেশের চাহিদা মিটিয়েও ইউরোপ, আমেরিকাসহ সারাবিশ্বে বাংলাদেশি পোশাক শিল্পের কদর বেড়েছে। বাংলাদেশি বস্ত্র শিল্পের গুণাগুণ তুলে ধরে বহির্বিশ্বে এর মার্কেট সৃষ্টিতে তিনি অগ্রণী ভূমিকা পালন করছেন।

মেধাবী আত্মপ্রত্যয়ী শিল্পোদ্যোক্তা এ কে আজাদ-এর জন্ম ফরিদপুরের ঝিলটুলির এক সম্ভান্ত মুসলিম পরিবাওে, ১৯৫৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর। তাঁর পিতা মরহুম আলহাজ্ব এম এ আজিজ ছিলেন ফরিদপুর জেলার সম্মানিত একজন ব্যক্তিত্ব। এ কে আজাদ ১৯৮৩ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অ্যাপলাইড ফিজিক্সে বিএসসি অনার্স ডিগ্রি লাভ করেন। শিক্ষাজীবন শেষে তিনি চাকরিতে না গিয়ে ব্যবসায় আত্মনিয়োগ করেন। নানা চড়াউ-উতরাই পেরিয়ে ব্যবসা অঙ্গনে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হন এবং গড়ে তোলেন ‘হা-মীম গ্রুপ অব কোম্পানিজ’। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে তিনি এই গ্রুপ অব কোম্পানিজের ম্যানেজিং ডিরেক্টর।

ইতিমধ্যে ‘হা-মীম গ্রুপ অব কোম্পানিজ’ দেশে-বিদেশে যথেষ্ঠ সুনাম অর্জন করেছে। এই গ্রুপের অব্যাহত অগ্রযাত্রা দেশের শিল্পায়নকে যেমন এগিয়ে নিচ্ছে, তেমনি দেশের অর্থনীতিতেও গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছে।

হা-মীম গ্রুপের কর্ণধার জনাব এ কে আজাদ শিল্প-বাণিজ্যের উদ্যোগকে শুধু মুনাফাভিত্তিক চিন্তা করেন না, তিনি একে বেকার সমস্যা সমধানের অন্যতম পথ হিসেবে বিবেচনা করেন। তিনি মনে করেন, বেসরকারি উদ্যোক্তারা যদি শিল্প স্থাপনে এগিয়ে না আসতেন তাহলে বাংলাদেশ এখনও অনেক পিছিয়ে থাকতো। বেকারত্বের হার বর্তমানের চেয়ে দশ গুণ বৃদ্ধি পেতো। তিনি দেশের বস্ত্র শিল্পের সুষ্ঠু বিকাশের মাধ্যমে জাতীয় অর্থনীতিতে বলিষ্ঠ ভূমিকা রেখে চলেছেন।

শিল্প সাম্রাজ্য হা-মীম গ্রুপের ব্যবসা তাঁর সুদক্ষ নেতৃত্ব দিনদিনই বিস্তৃত হচ্ছে। ইতোমধ্যে এই গ্রুপ টেক্সটাইল, জুট মিলস, রেডিমেড গার্মেন্ট, ব্যাংক ও ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি খাতে ব্যবসা পরিচালনা করছে। তিনি বোর্ড অব ইনভেস্টমেন্ট (বিওআই) এর সাবেক পরিচালক। রেডিমেড গার্মেন্ট শিল্প খাতে তাঁর এক্সপোর্টের পরিমাণ প্রায় দুইশ মিলিয়ন ইউএস ডলার। হা-মীম গ্রুপের অ্যাপারেল ব্র্যান্ড আমেরিকা এবং ইউরোপে বেশ সমাদৃত। এই গ্রুপভুক্ত নিশাত জুট মিল, ডেনিম মিল দেশের শিল্পায়নকে এগিয়ে নিয়েছে। এ কে আজাদ ব্যাংক এবং বীমা সেক্টরেও বিনিয়োগ করেছেন এবং পরিচালক পদে দায়িত্ব পালন করছেন।

জনাব এ কে আজাদ দেশের প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়াতে সংশ্লিষ্ট রয়েছেন। তিনি টাইমস মিডিয়া লিমিটেডের বাংলা  ‘দৈনিক সমকাল’-এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রকাশক। এছাড়া তনি ‘চ্যানেল ২৪’-এর চেয়ারম্যান। তিনি শিক্ষা ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছেন। তাঁর পিতা এম এ আজিজ একজন বিদ্যানুরাগী ও সমাজসেবক ছিলেন। এই অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ এলাকার মানুষ তাঁর নামে একটি হাই স্কুল প্রতিষ্ঠা করেন। এছাড়া জনাব আজাদ বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনুদান ও বৃত্তি প্রদান করেন এবং সামাজিক সংগঠনের উদ্যোক্তা ও দাতা। তাঁর ছেলেমেয়েরাও উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত এবং নিজ নিজ ক্ষেত্রে সফল। দেশখ্যাত সফল সংগঠক ব্যবসায়ী নেতা, সদালাপী, শিল্পমনস্ক এবং অধ্যবসায়ী এই শিল্প ব্যক্তিত্ব ব্যবসায়িক প্রয়োজনে পৃথিবীর অসংখ্য দেশ ভ্রমণ করেছেন।

জনাব এ কে আজাদ-এর মধ্যে নেতৃত্বের অসংখ্য গুণাবলী বিদ্যমান। তিনি শুধু নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকেই নিয়েই ভাবেন না, দেশের সার্বিক শিল্প-বাণিজ্যেও সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়েও চিন্তা করেন। তিনি ব্যবসায়ী-শিল্পোদ্যোক্তাদের শীর্ষ সংগঠন ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফবিসিসিআই) নির্বাচিত সভাপতি হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা  রেখেছেন। এছাড়াও তিনি বাংলাদেশ বাংলাদেশ চেম্বার্স অব ইন্ডাস্ট্রির (বিসিআই) পরপর দু’বার নির্বাচিত সভাপতি ছিলেন। ব্যবসা-বাণিজ্যের মাধ্যমে দেশের অর্থনীতিতে বিশেষ অবদান রাখায় জনাব এ কে আজাদ সরকার কর্তৃক ব্যবসায়িক সম্মাননা কমার্শিয়াল ইমপোর্টেন্ট পার্সন (সিআইপি) মনোনীত হয়েছেন।

  • Rocking the night away
  • Rocking the night away
  • Rocking the night away
  • Rocking the night away
  • Rocking the night away
  • Rocking the night away
  • Rocking the night away
  • Rocking the night away
  • Rocking the night away
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান BANGLADESH ICON আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ আতিউর রহমান বেগম রোকেয়া মোস্তাফা জব্বার ভাষা শহিদ সজীব ওয়াজেদ জয় তাজউদ্দীন আহমদ শেরে বাংলা ফজলুল হক মাওলানা ভাসানী  প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার বেগম সুফিয়া কামাল শেখ হাসিনা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হোসেন শহিদ সোহরাওয়ার্দি কাজী নজরুল ইসলাম মাস্টারদা সূৰ্য সেন ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ মণি সিংহ স্যার ফজলে হাসান আবেদ  সালমান এফ রহমান সুফী মুহাম্মদ মিজানুর রহমান মোরশেদ আলম এমপি সৈয়দ মঞ্জুর এলাহী আহমেদ আকবর সোবহান জয়নুল হক সিকদার দীন মোহাম্মদ আজম জে. চৌধুরী প্রফেসর মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন সাইফুল আলম মাসুদ আলহাজ্ব এম এম এনামুল হক খলিলুর রহমান এ কে এম রহমত উল্লাহ্ ইফতেখার আহমেদ টিপু শেখ কবির হোসেন এ কে আজাদ ডাঃ মোমেনুল হক আলহাজ্ব মোঃ হারুন-উর-রশীদ কাজী সিরাজুল ইসলাম নাছির ইউ. মাহমুদ ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল আজিজ শেখ ফজলে ফাহিম প্রফেসর ড. কবির হোসেন তালুকদার মোঃ হাবিব উল্লাহ ডন রূপালী চৌধুরী হেলেন আখতার নাসরীন মনোয়ারা হাকিম আলী নাসরিন সরওয়ার মেঘলা প্রীতি চক্রবর্তী মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির ক্যাপ্টেন তাসবীরুল আহমেদ চৌধুরী এহসানুল হাবিব আলহাজ্জ্ব জাহাঙ্গীর আলম সরকার আলহাজ্ব খন্দকার রুহুল আমিন তানভীর আহমেদ ড. বেলাল উদ্দিন আহমদ মোঃ শফিকুর রহমান সেলিম রহমান মাফিজ আহমেদ ভূঁইয়া  মোঃ ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদ  শহিদ রেজা আব্দুর রউফ জেপি এডভোকেট ইকবাল আহমদ চৌধুরী এ কে এম সরওয়ারদি চৌধুরী ড. এম. মোশাররফ হোসেন মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন লায়ন মোঃ মোজাম্মেল হক ভূঁইয়া মোঃ মিজানুর রহমান সায়েম সোবহান আনভীর মামুন-উর-রশিদ বি এম ইউসুফ আলী মোঃ জামিরুল ইসলাম ডক্টর হেমায়েত হোসেন মোঃ শাহ আলম সরকার ফারজানা চৌধুরী এম. সামসুজ্জামান মেজর পারভেজ হাসান (অব.) এম এ মতিন সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল মাসুদ পারভেজ খান ইমরান ড. এম এ ইউসুফ খান কাজী সাজেদুর রহমান ড. হাকীম মোঃ ইউছুফ হারুন ভূঁইয়া আলহাজ্ব মীর শাহাবুদ্দীন মোঃ মুনতাকিম আশরাফ (টিটু) মোঃ আবদুর রউফ কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদ আব্দুল মাতলুব আহমাদ মোঃ মজিবর রহমান মোহাম্মদ নূর আলী সাখাওয়াত আবু খায়ের মোহাম্মদ আফতাব-উল ইসলাম মোঃ সিরাজুল ইসলাম মোল্লা এমপি প্রফেসর ড. আবু ইউসুফ মোঃ আব্দুল্লাহ মোঃ জসিম উদ্দিন বেনজীর আহমেদ মিসেস তাহেরা আক্তার পারভীন হক সিকদার নাসির এ চৌধুরী হাফিজুর রহমান খান ড. মোহাম্মদ ফারুক কাইউম রেজা চৌধুরী মোঃ সবুর খান মাহবুবুল আলম মোঃ হেলাল মিয়া সেলিমা আহমাদ নজরুল ইসলাম ড. এ এস এম বদরুদ্দোজা ড. হায়দার আলী মিয়া ইঞ্জিনিয়ার গুলজার রহমান এম জামালউদ্দিন মোঃ আব্দুল হামিদ মিয়া মোঃ হাবিবুর রহমান মোঃ মুহিব্বুর রহমান চৌধুরী মোহাম্মদ নুরুল আমিন জিয়াউর রহমান ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী শ্যামল দত্ত জ ই মামুন আনিসুল হক সামিয়া রহমান মুন্নি সাহা আব্বাসউদ্দীন আহমদ নীলুফার ইয়াসমীন ফিরোজা বেগম শাহ আব্দুল করিম ফরিদা পারভীন সরদার ফজলুল করিম আনিসুজ্জামান আখতারুজ্জামান ইলিয়াস হুমায়ূন আহমেদ সেলিম আল দীন জহির রায়হান বুলবুল আহমেদ রওশন জামিল সৈয়দ হাসান ইমাম হেলেনা জাহাঙ্গীর অঞ্জন রায় অধ্যক্ষ আব্দুল আহাদ চৌধুরী অধ্যাপক আবু আহমেদ অধ্যাপক  আবু সাইয়িদ অধ্যাপক আমেনা মহসীন অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ অধ্যাপক জয়নাল আবদিন এমপি অধ্যাপক ড. আরিফুর রহমান অধ্যাপক ড. আব্দুল মতিন পাটোয়ারী অধ্যাপক ড. ইজাজ হোসেন অধ্যাপক ড. এ কে আজাদ চৌধুরী অধ্যাপক ড. এ কে আব্দুল মোমেন অধ্যাপক ড. এম এ মান্নান অধ্যাপক ড. এম এ হাকিম অধ্যাপক ড. এম শমসের আলী অধ্যাপক ড. দিলারা চৌধুরী অধ্যাপক ড. শাহেদা ওবায়েদ অধ্যাপক ড. সদরুল আমিন অধ্যাপক ড. হাফিজ জি. এ. সিদ্দিকী অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন অধ্যাপক তৌহিদুল আলম অধ্যাপক ডা. বরেন চক্রবর্তী অধ্যাপক ডা. মতিউর রহমান অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ অধ্যাপক ডা. মোঃ হাবিবে মিল্লাত এমপি অধ্যাপক মেহতাব খানম অধ্যাপিকা অপু উকিল এমপি অধ্যাপক ড. হোসনে আরা বেগম আইয়ুব বাচ্চু আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন আনিস এ. খান আনোয়ার উল আলম চৌধুরী পারভেজ আনোয়ার হোসেন মঞ্জু আবদুল বাসেত মজুমদার আবু সাঈদ খান আবুল কাশেম মোঃ শিরিন আবুল কাসেম হায়দার আবুল মাল আব্দুল মুহিত আব্দুল আউয়াল মিন্টু আব্দুল মতিন খসরু এমপি আবদুল মুকতাদির আব্দুল মুয়ীদ চৌধুরী আব্দুস সালাম মুর্শেদী আমির আমির হোসেন আমু এমপি আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী আয়শা খানম আ স ম আবদুর রব আ স ম ফিরোজ আসাদুজ্জামান খান কামাল আসিফ ইব্রাহীম আলী রেজা ইফতেখার আ হ ম মুস্তফা কামাল এমপি ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুন ইনায়েতুর রহিম ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক এমপি ইঞ্জিনিয়ার নুরুল আকতার ইমদাদুল হক মিলন উপধ্যক্ষ মোঃ আব্দুস শহীদ এমপি এ এইচ এম নোমান এ এইছ আসলাম সানি এ কে ফাইয়াজুল হক রাজু এডভোকেট তানবীর সিদ্দিকী এডভোকেট ফজিলাতুন নেসা বাপ্পি এমপি এডভোকেট মোঃ ফজলে রাব্বী এমপি এনাম আলী এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি এম এ সবুর এম নাছের রহমান এয়ার কমডোর ইসফাক এলাহী চৌধুরী (অব.) এস এম ফজলুল হক ওয়াহিদা বানু কবরী সারোয়ার কাজী ফিরোজ রশীদ কেকা ফেরদৌসী কে. মাহমুদ সাত্তার খন্দকার রুহুল আমিন খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ খালেদ মুহিউদ্দীন খুশি কবির জুনাইদ আহমেদ পলক জোবেরা লিনু টিপু মুন্সী ড. আবুল বারকাত ড. কাজী কামাল আহমদ ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ ড. তৌফিক এম. সেরাজ ড. বদিউল আলম মজুমদার ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন ড. সাজ্জাদ জহির ড. সা’দত হুসাইন মেজর জেনারেল সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহীম (অব.) বীর প্রতীক মেজর জেনারেল হেলাল মোর্শেদ খান (অব.) বীর বিক্রম মেহের আফরোজ চুমকি মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ মিথিলা ফারজানা মীর নাসির হোসেন মীর মাসরুর জামান মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দীন মীর শওকাত আলী বাদশা মুনিরা খান মুহাম্মদ আজিজ খান মোহাম্মদ নূর আলী মোঃ গোলাম মাওলা রনি এমপি মোঃ জসিম উদ্দিন মসিউর রহমান রাঙ্গা রাশেদ খান মেনন রাশেদা কে চৌধুরী লে. কর্ণেল মোঃ ফারুক খান (অব.) শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানি শাইখ সিরাজ শাওন মাহমুদ শাজাহান খান এমপি শামসুজ্জামান খান শাহীন আনাম শারমীন মুরশিদ শুভ্র দেব শিবলী মোহাম্মদ শিরীন আখতার সরদার সাখাওয়াত হোসেন বকুল স্থপতি মোবাশ্বের হোসেন সাঈদ খোকন সাকিব আল হাসান সাগুফতা ইয়াসমিন এমেলী সাব্বির হাসান নাসির সালমা খান সালাউদ্দিন কাশেম খান সিগমা হুদা সিলভীয়া পারভীন লিনি সুকুমার রঞ্জন ঘোষ সুরাইয়া জান্নাত সুলতানা কামাল সৈয়দ আখতার মাহমুদ সৈয়দ আবুল মকসুদ সৈয়দ মার্গুব মোর্শেদ সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান হাসানুল হক ইনু ড. সিনহা এম এ সাঈদ অধ্যাপক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন ড. হামিদুল হক ড. হোসেন জিল্লুর রহমান ড. হোসেন মনসুর ড. রেজোয়ান সিদ্দিকী ডা. অরূপরতন চৌধুরী ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী ডা. জাফরুল্লাহ্ চৌধুরী ডা. জোনাইদ শফিক ডা. মোঃ আব্দুল মতিন ডা. লুৎফর রহমান ডা. সরদার এ নাঈম ডা. সাঈদ আহমেদ সিদ্দিকী ডা. সামন্ত লাল সেন তোফায়েল আহমেদ তালেয়া রেহমান দিলরুবা হায়দার নজরুল ইসলাম খান নজরুল ইসলাম বাবু নবনীতা চৌধুরী নাঈমুর ইসলাম খান নমিতা ঘোষ নাঈমুর রহমান দূর্জয় নাসরীন আওয়াল মিন্টু নুরুল ইসলাম সুজন এমপি নুরুল কবীর নিলোফার চৌধুরী মনি এমপি প্রকোশলী তানভিরুল হক প্রবাল প্রফেসর মেরিনা জাহান ফকির আলমগীর ফরিদ আহমেদ বেগম মতিয়া চৌধুরী বিগ্রেডিয়ার জেনারেল এম সাখাওয়াত হোসেন (অব.) ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ ব্যারিস্টার আমীর-উল ইসলাম ব্যারিস্টার তানিয়া আমীর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা ব্যারিস্টার সারা হোসেন ভেলরি এ টেইলর মতিউর রহমান চৌধুরী মনজিল মোরসেদ মমতাজ বেগম এমপি মামুন রশীদ মাহফুজ আনাম মাহফুজ উল্লাহ