Bangladesh Icon
আইকন সংবাদ:

এ কে এম রহমত উল্লাহ্

প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান, এ কে এম রহমত উল্লাহ্ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ জাতীয় সংসদ সদস্য, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার


দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার আন্দেলন-সংগ্রামে প্রত্যক্ষভাবে যে কয়জন অংশ নেওয়ার মধ্য দিয়ে নিজেদের পরিচয় কে মহামান্বিত তুলেছেন তাঁদের মধ্যে একজন এ কে এম রহমত উল্লাহ্ এমপি।একজন আগাগোড়া প্রগতিমনস্ক রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। তিনি একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং সমাজ উন্নয়নের অন্যতম কারিগর। বাংলাদেশ জাতীয় সংসদে ঢাকা-১১ আসনের নির্বাচিত এমপি হিসেবে ইতোমধ্যে অর্জন করেছেন বিজ্ঞ পার্লামেন্টারিয়ানের পরিচয়। এছাড়া দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য অঙ্গনেও তিনি ব্যাপক ভূমিকা পালন এবং অবদান রেখে চলেছেন।

এ কে এম রহমত উল্লাহ্র জন্ম ১৯৫০ সালের ৪ ডিসেম্বর ঢাকা জেলার গুলশান থানাধীন বড় বেরাইদ গ্রামের সম্ভ্রান্ত এক মুসলিম পরিবারে। তাঁর পিতা মরহুম আলহাজ্ব রহিমউল্লাহ মোল্লা ছিলেন একজন বিশিষ্ট সমাজসেবক ও ব্যবসায়ী। এ কে এম রহমত উল্লাহ্ প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সমাপ্তির পর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ থেকে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন। ছাত্র জীবন থেকেই রাজনীতি সচেতন এই ব্যক্তিত্ব প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা শেষে ব্যবসা-বাণিজ্যে সংশ্লিষ্ট হন।

১৯৭১ সালে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের বীর সেনানী এ কে এম রহমত উল্লাহ্ কর্মময় জীবনে ট্যানারি ব্যবসায় গুণগত বিরাট পরিবর্তনের মাধ্যমে ট্যানারি শিল্পে স্বনামখ্যাত ব্যবসায়ী হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করেন। তাঁর গড়ে তোলা প্রতিষ্ঠানের নাম এপেক্স ট্যানারি লিমিটেড। এর সাফল্যের ধারাবাহিকতায় এপেক্স প্রোপাটি ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড প্রতিষ্ঠা করে ল্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ব্যবসায় প্রভূত উন্নতি করেন। পাশাপাশি যুক্ত হন বস্ত্র শিল্পের ব্যবসায়। ডায়চিপেক্স উন্নত মানের টেক্সটাইল মিলস লিমিটেড নামে একটি প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন তিনি। ডায়াচিপেক্স উন্নত মানের টেক্সটাইল সামগ্রী উৎপাদনের মধ্য দিয়ে এ খাতে ব্যাপক খ্যাতি লাভ করে। এ সুবাদে এ কে এম রহমত উল্লাহ টেক্সটাইল ব্যবসায় অত্যন্ত মেধাবী উদ্যোক্তা হিসেবে বিপুল সুনামের অধিকারী হন। সাফল্যেরা ধারাবাহিকতায় তিনি প্রতিষ্ঠা করেন এফবি ফুটওয়্যার এবং ফুটবেড ফুটওয়্যার কোম্পানি নামে পাদুকা ও পাদুকা সামগ্রী তৈরির দুটি শিল্প প্রতিষ্ঠান। জনাব এ কে এম রহমত উল্লাহ্ এসব প্রতিষ্ঠানের সম্মানিত চেয়ারম্যান। এসব শিল্প-ব্যবসার পাশাপাশি বীমা জগতেও রয়েছে তাঁর উজ্জ্বল উপস্থিতি। তিনি পাইওনিয়র ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের সম্মানিত পরিচালক।

এ কে এম রহমত উল্লাহ্ এ সফল মানুষের নামÑ যিনি শুধু নিজেকে নিবেদন করেছেন দেশ ও জাতির কল্যাণে। বীর মুক্তিযোদ্ধা রহমতউল্লাহ যেমন শিল্পোদ্যোক্তা-ব্যবসায়ী হিসেবে সুনাম অর্জনের অধিকারী হয়েছেন। পাশাপাশি রাজনৈতিক অঙ্গনে ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার আন্দোলন-সংগ্রামে আলোকিত সৈনিক হিসেবে খেতাব অর্জন করেছেন। দেশের বেকার জনগোষ্ঠির জর্মসংস্থানের লক্ষ্যে যেমন প্রতিষ্ঠা করেছেন শিল্প-কারখানা তেমনি সমাজকে আলোকিত করতে গড়ে তুলেছেন বিশকিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

এ কে এম রহমত উল্লাহ্ এমপি শুধু ব্যবসায় জীবনের গণ্ডিতে আবদ্ধ থাকেনিÑ দেশের রাজনৈতিক পরিবেশ ও গণতন্ত্রের উন্নয়ন, মহান মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষ শক্তির রাজনীতি বিকাশের জন্য রাজনৈতিক জ্ঞান ও প্রত্যয় এবং পরিশ্রমী কর্মতৎপরতা, দক্ষতা এবং ক্ষমতার মাধ্যমে নিজেকে সম্মানজনক অবস্থানে দাঁড় করাতে সক্ষম হয়েছেন। এ কে এম রহমত উল্লাহ্ মহান জাতীয় সংসদে একজন বিজ্ঞ পার্লামেন্টারিয়ানের নাম। তিনি সংসদে তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ-ভারত সম্প্রীতি পরিষদের চেয়ারপারসন, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি। জনাব রহমত উল্লাহ্ ১৯৮৪ থেকে ১৯৮৭ এবং ১৯৯৮ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট মেম্বার পদে দায়িত্ব পালন করেছেন।

দেশের রাজনৈতিক অঙ্গনে বিশিষ্টজন এ কে এম রহমত উল্লাহ্ গণতন্ত্রের একনিষ্ঠ ও পরীক্ষিত কর্মী। অর্থনৈতিক মুক্তি অর্জনে লক্ষ্যাভিসারী এই ব্যক্তিত্ব শিল্প-ব্যবসা-বাণিজ্যে  যেমন অবদান রাখছেন তেমনি সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে জনকল্যাণে ব্যাপক ভূমিকা পালন করছেন। তিনি জনগণের প্রতি যথেষ্ট আন্তরিক। জনমানুষের হৃদয়ের পাশে থাকার চিরপরিচিত মন তাঁকে নিজ নির্বাচনী এলাকায় অপ্রতিদ্বন্দ্বিী করেছে। শত ব্যস্ততার মাঝে ও সামাজিক কার্যক্রমে তিনি আন্তরিকভাবে যুক্ত রয়েছেন। জনগণের আস্থা ও বিশ্বস্ততার প্রতীক, পরিচ্ছন্ন ও জনকল্যাণের রাজনীতিতে বিশ্বাসী জনাব এ কে এম রহমত উল্লাহ্ এমপি শিক্ষাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে শিক্ষার প্রসারে অসংখ্য প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জড়িত হয়েছেন। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নতি সাধনসহ শিক্ষার পরিবেশ ও মানোন্নয়নের দিকে নিজের অংশগ্রহণকে অর্থবহ করে রাখছেন নিয়মিত নজর রাখার মধ্য দিয়ে। বিদ্যোৎসাহী এই ব্যক্তিত্ব রাজধানীর বাড্ডা এলাকায় এ কে এম রহমত উল্লাহ্ ইউনিভার্সিটি কলেজ, রওশন আরা গার্লস হাইস্কুল এবং আলহাজ্ব রহিমুল্লাহ মোল্লা মাদ্রাসা ও এতিমখানার প্রতিষ্ঠাতা। এছাড়া তিনি বাড্ডার সাঁতারকুল হাইস্কুল, তলনা হাইস্কুল, ডুমনি হাইস্কুল, গুলশান সোসাইটি এবং বারিধারা সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং এসব প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে অনন্য অবদান রেখে চলেছেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা এ কে এম রহমত উল্লাহ্ তৃণমূল থেকে রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন। তিনি ১৯৭৬ থেকে ১৯৮০ সাল পর্যন্ত ঢাকার গুলশান থানাধীন রেবাইদ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালনের মধ্য দিয়ে জনগণের সেবা করছেন। এরপর ১৯৮১ থেকে ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের ১৯ নং ওয়ার্ড কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ১৯৮৯ থেকে ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত রহমতউল্লাহ মুসলিম ফ্রেন্ড সোসাইটির সভাপতি ছিলেন। জনাব রহমতউল্লাহ বাংলাদেশ ফিনিশড লেদার গুডস অ্যান্ড ফুটওয়্যার এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের ঢাকা মহানগর কমিটি বাড্ডা জাগরণী সংঘ, বাড্ডা-ঢাকার প্রধান উপদেষ্টা।

এ কে এম রহমত উল্লাহ্ ২০০৮ ও ২০১৪ সালের সংসদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন। তিনি জীবনধর্মী এবং অসাম্প্রদায়িক নীতিতে বিশ্বাসী সজ্জন ব্যক্তিত্ব। তিনি ভিক্টোরিয়া স্পোটিং ক্লাব, বাংলাদেশ শ্যুটিং ক্লাব লিমিটেড, কুর্মিটোলা-ঢাকা; ঢাকা ক্লাব লিমিটেড, গুলশান ক্লাব এবং উত্তরা ক্লাব লিমিটেডের জীবন সদস্য। এছাড়াও তিনি সমাজসেবামূলক বিভিন্ন কর্মকান্ডে যুক্ত রয়েছেন।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের আজীবন লালিত স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণের একজন প্রত্যয়দীপ্ত কর্মী হিসেবে জনাব রহমতউল্লাহ নিরলস দায়িত্ব পালন করে চলেছেন। বর্তমান সরকারের নির্বাচনী ইশতেহার তথা ক্ষুদা ও দারিদ্র্যমুক্ত ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলতে বীর মুক্তিযোদ্ধা এ কে এম রহমত উল্লাহ্ এমপি জনকল্যাণমুখী অবদান রাখার মধ্য দিয়ে অনন্য উচ্চতায় নিজের অবস্থান সংহত করেছেন। আলোকিত শিক্ষিত সমাজ গড়ে তুলতে তাঁর অংশগ্রহণ প্রিয় মাতৃভূমির জন্যে নিবিড় ভালোবাসারই বহিঃপ্রকাশ।

  • Rocking the night away
  • Rocking the night away
  • Rocking the night away
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান BANGLADESH ICON আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ আতিউর রহমান বেগম রোকেয়া মোস্তাফা জব্বার ভাষা শহিদ সজীব ওয়াজেদ জয় তাজউদ্দীন আহমদ শেরে বাংলা ফজলুল হক মাওলানা ভাসানী  প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার বেগম সুফিয়া কামাল শেখ হাসিনা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হোসেন শহিদ সোহরাওয়ার্দি কাজী নজরুল ইসলাম মাস্টারদা সূৰ্য সেন ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ মণি সিংহ স্যার ফজলে হাসান আবেদ  সালমান এফ রহমান সুফী মুহাম্মদ মিজানুর রহমান মোরশেদ আলম এমপি সৈয়দ মঞ্জুর এলাহী আহমেদ আকবর সোবহান জয়নুল হক সিকদার দীন মোহাম্মদ আজম জে. চৌধুরী প্রফেসর মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন সাইফুল আলম মাসুদ আলহাজ্ব এম এম এনামুল হক খলিলুর রহমান এ কে এম রহমত উল্লাহ্ ইফতেখার আহমেদ টিপু শেখ কবির হোসেন এ কে আজাদ ডাঃ মোমেনুল হক আলহাজ্ব মোঃ হারুন-উর-রশীদ কাজী সিরাজুল ইসলাম নাছির ইউ. মাহমুদ ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল আজিজ শেখ ফজলে ফাহিম প্রফেসর ড. কবির হোসেন তালুকদার মোঃ হাবিব উল্লাহ ডন রূপালী চৌধুরী হেলেন আখতার নাসরীন মনোয়ারা হাকিম আলী নাসরিন সরওয়ার মেঘলা প্রীতি চক্রবর্তী মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির ক্যাপ্টেন তাসবীরুল আহমেদ চৌধুরী এহসানুল হাবিব আলহাজ্জ্ব জাহাঙ্গীর আলম সরকার আলহাজ্ব খন্দকার রুহুল আমিন তানভীর আহমেদ ড. বেলাল উদ্দিন আহমদ মোঃ শফিকুর রহমান সেলিম রহমান মাফিজ আহমেদ ভূঁইয়া  মোঃ ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদ  শহিদ রেজা আব্দুর রউফ জেপি এডভোকেট ইকবাল আহমদ চৌধুরী এ কে এম সরওয়ারদি চৌধুরী ড. এম. মোশাররফ হোসেন মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন লায়ন মোঃ মোজাম্মেল হক ভূঁইয়া মোঃ মিজানুর রহমান সায়েম সোবহান আনভীর মামুন-উর-রশিদ বি এম ইউসুফ আলী মোঃ জামিরুল ইসলাম ডক্টর হেমায়েত হোসেন মোঃ শাহ আলম সরকার ফারজানা চৌধুরী এম. সামসুজ্জামান মেজর পারভেজ হাসান (অব.) এম এ মতিন সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল মাসুদ পারভেজ খান ইমরান ড. এম এ ইউসুফ খান কাজী সাজেদুর রহমান ড. হাকীম মোঃ ইউছুফ হারুন ভূঁইয়া আলহাজ্ব মীর শাহাবুদ্দীন মোঃ মুনতাকিম আশরাফ (টিটু) মোঃ আবদুর রউফ কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদ আব্দুল মাতলুব আহমাদ মোঃ মজিবর রহমান মোহাম্মদ নূর আলী সাখাওয়াত আবু খায়ের মোহাম্মদ আফতাব-উল ইসলাম মোঃ সিরাজুল ইসলাম মোল্লা এমপি প্রফেসর ড. আবু ইউসুফ মোঃ আব্দুল্লাহ মোঃ জসিম উদ্দিন বেনজীর আহমেদ মিসেস তাহেরা আক্তার পারভীন হক সিকদার নাসির এ চৌধুরী হাফিজুর রহমান খান ড. মোহাম্মদ ফারুক কাইউম রেজা চৌধুরী মোঃ সবুর খান মাহবুবুল আলম মোঃ হেলাল মিয়া সেলিমা আহমাদ নজরুল ইসলাম ড. এ এস এম বদরুদ্দোজা ড. হায়দার আলী মিয়া ইঞ্জিনিয়ার গুলজার রহমান এম জামালউদ্দিন মোঃ আব্দুল হামিদ মিয়া মোঃ হাবিবুর রহমান মোঃ মুহিব্বুর রহমান চৌধুরী মোহাম্মদ নুরুল আমিন জিয়াউর রহমান ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী শ্যামল দত্ত জ ই মামুন আনিসুল হক সামিয়া রহমান মুন্নি সাহা আব্বাসউদ্দীন আহমদ নীলুফার ইয়াসমীন ফিরোজা বেগম শাহ আব্দুল করিম ফরিদা পারভীন সরদার ফজলুল করিম আনিসুজ্জামান আখতারুজ্জামান ইলিয়াস হুমায়ূন আহমেদ সেলিম আল দীন জহির রায়হান বুলবুল আহমেদ রওশন জামিল সৈয়দ হাসান ইমাম হেলেনা জাহাঙ্গীর অঞ্জন রায় অধ্যক্ষ আব্দুল আহাদ চৌধুরী অধ্যাপক আবু আহমেদ অধ্যাপক  আবু সাইয়িদ অধ্যাপক আমেনা মহসীন অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ অধ্যাপক জয়নাল আবদিন এমপি অধ্যাপক ড. আরিফুর রহমান অধ্যাপক ড. আব্দুল মতিন পাটোয়ারী অধ্যাপক ড. ইজাজ হোসেন অধ্যাপক ড. এ কে আজাদ চৌধুরী অধ্যাপক ড. এ কে আব্দুল মোমেন অধ্যাপক ড. এম এ মান্নান অধ্যাপক ড. এম এ হাকিম অধ্যাপক ড. এম শমসের আলী অধ্যাপক ড. দিলারা চৌধুরী অধ্যাপক ড. শাহেদা ওবায়েদ অধ্যাপক ড. সদরুল আমিন অধ্যাপক ড. হাফিজ জি. এ. সিদ্দিকী অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন অধ্যাপক তৌহিদুল আলম অধ্যাপক ডা. বরেন চক্রবর্তী অধ্যাপক ডা. মতিউর রহমান অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ অধ্যাপক ডা. মোঃ হাবিবে মিল্লাত এমপি অধ্যাপক মেহতাব খানম অধ্যাপিকা অপু উকিল এমপি অধ্যাপক ড. হোসনে আরা বেগম আইয়ুব বাচ্চু আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন আনিস এ. খান আনোয়ার উল আলম চৌধুরী পারভেজ আনোয়ার হোসেন মঞ্জু আবদুল বাসেত মজুমদার আবু সাঈদ খান আবুল কাশেম মোঃ শিরিন আবুল কাসেম হায়দার আবুল মাল আব্দুল মুহিত আব্দুল আউয়াল মিন্টু আব্দুল মতিন খসরু এমপি আবদুল মুকতাদির আব্দুল মুয়ীদ চৌধুরী আব্দুস সালাম মুর্শেদী আমির আমির হোসেন আমু এমপি আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী আয়শা খানম আ স ম আবদুর রব আ স ম ফিরোজ আসাদুজ্জামান খান কামাল আসিফ ইব্রাহীম আলী রেজা ইফতেখার আ হ ম মুস্তফা কামাল এমপি ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুন ইনায়েতুর রহিম ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক এমপি ইঞ্জিনিয়ার নুরুল আকতার ইমদাদুল হক মিলন উপধ্যক্ষ মোঃ আব্দুস শহীদ এমপি এ এইচ এম নোমান এ এইছ আসলাম সানি এ কে ফাইয়াজুল হক রাজু এডভোকেট তানবীর সিদ্দিকী এডভোকেট ফজিলাতুন নেসা বাপ্পি এমপি এডভোকেট মোঃ ফজলে রাব্বী এমপি এনাম আলী এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি এম এ সবুর এম নাছের রহমান এয়ার কমডোর ইসফাক এলাহী চৌধুরী (অব.) এস এম ফজলুল হক ওয়াহিদা বানু কবরী সারোয়ার কাজী ফিরোজ রশীদ কেকা ফেরদৌসী কে. মাহমুদ সাত্তার খন্দকার রুহুল আমিন খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ খালেদ মুহিউদ্দীন খুশি কবির জুনাইদ আহমেদ পলক জোবেরা লিনু টিপু মুন্সী ড. আবুল বারকাত ড. কাজী কামাল আহমদ ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ ড. তৌফিক এম. সেরাজ ড. বদিউল আলম মজুমদার ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন ড. সাজ্জাদ জহির ড. সা’দত হুসাইন মেজর জেনারেল সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহীম (অব.) বীর প্রতীক মেজর জেনারেল হেলাল মোর্শেদ খান (অব.) বীর বিক্রম মেহের আফরোজ চুমকি মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ মিথিলা ফারজানা মীর নাসির হোসেন মীর মাসরুর জামান মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দীন মীর শওকাত আলী বাদশা মুনিরা খান মুহাম্মদ আজিজ খান মোহাম্মদ নূর আলী মোঃ গোলাম মাওলা রনি এমপি মোঃ জসিম উদ্দিন মসিউর রহমান রাঙ্গা রাশেদ খান মেনন রাশেদা কে চৌধুরী লে. কর্ণেল মোঃ ফারুক খান (অব.) শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানি শাইখ সিরাজ শাওন মাহমুদ শাজাহান খান এমপি শামসুজ্জামান খান শাহীন আনাম শারমীন মুরশিদ শুভ্র দেব শিবলী মোহাম্মদ শিরীন আখতার সরদার সাখাওয়াত হোসেন বকুল স্থপতি মোবাশ্বের হোসেন সাঈদ খোকন সাকিব আল হাসান সাগুফতা ইয়াসমিন এমেলী সাব্বির হাসান নাসির সালমা খান সালাউদ্দিন কাশেম খান সিগমা হুদা সিলভীয়া পারভীন লিনি সুকুমার রঞ্জন ঘোষ সুরাইয়া জান্নাত সুলতানা কামাল সৈয়দ আখতার মাহমুদ সৈয়দ আবুল মকসুদ সৈয়দ মার্গুব মোর্শেদ সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান হাসানুল হক ইনু ড. সিনহা এম এ সাঈদ অধ্যাপক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন ড. হামিদুল হক ড. হোসেন জিল্লুর রহমান ড. হোসেন মনসুর ড. রেজোয়ান সিদ্দিকী ডা. অরূপরতন চৌধুরী ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী ডা. জাফরুল্লাহ্ চৌধুরী ডা. জোনাইদ শফিক ডা. মোঃ আব্দুল মতিন ডা. লুৎফর রহমান ডা. সরদার এ নাঈম ডা. সাঈদ আহমেদ সিদ্দিকী ডা. সামন্ত লাল সেন তোফায়েল আহমেদ তালেয়া রেহমান দিলরুবা হায়দার নজরুল ইসলাম খান নজরুল ইসলাম বাবু নবনীতা চৌধুরী নাঈমুর ইসলাম খান নমিতা ঘোষ নাঈমুর রহমান দূর্জয় নাসরীন আওয়াল মিন্টু নুরুল ইসলাম সুজন এমপি নুরুল কবীর নিলোফার চৌধুরী মনি এমপি প্রকোশলী তানভিরুল হক প্রবাল প্রফেসর মেরিনা জাহান ফকির আলমগীর ফরিদ আহমেদ বেগম মতিয়া চৌধুরী বিগ্রেডিয়ার জেনারেল এম সাখাওয়াত হোসেন (অব.) ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ ব্যারিস্টার আমীর-উল ইসলাম ব্যারিস্টার তানিয়া আমীর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা ব্যারিস্টার সারা হোসেন ভেলরি এ টেইলর মতিউর রহমান চৌধুরী মনজিল মোরসেদ মমতাজ বেগম এমপি মামুন রশীদ মাহফুজ আনাম মাহফুজ উল্লাহ